June 24, 2024, 12:05 pm
শিরোনাম :
পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে পশুর হাটের সার্বিক আইন – শৃঙ্খলা রক্ষার্থে মতবিনিময় সভা সম্পন্ন পিবিআই এর দৃঢ়তায় মানবপাচারকারী এর হাত থেকে ভিকটিম উদ্ধার, আটক -৩: ভিন্ন আঙ্গিকে নবাবগঞ্জ উপজেলা হিন্দু ছাত্র মহাজোট এর শরবত ও স্যালাইন বিতরণ কর্মসূচি এলজিইডি এর মূল্যায়নে শ্রেষ্ঠ ইউপি চেয়ারম্যান নির্বাচিত হলেন এম এ বারী বাবুল মোল্লা নরসিংদীতে আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে ২ পক্ষের টেঁটাযুদ্ধ আন্তর্জাতিক মা দিবস উপলক্ষে BHDS অপরাধ প্রতিরোধ কল্যাণ সংস্থার উদ্যোগে আলোচনা ও গুণীজন সম্মাননা প্রদান নরসিংদীর রায়পুরায় ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থীকে পিটিয়ে হত্যা ব্যবিচারে লিপ্ত থাকায় আবাসিক হোটেল থেকে নারী – পুরুষ গ্রেফতার -২ নবাবগঞ্জের শোল্লায় এক শিশুকে হত্যার অভিযোগে ২ জন গ্রেফতার রুগঞ্জে জালভোট দেওয়ার সময় ২ যুবক আটক:

আইন পেশাকে জীবিকা হিসেবে ব্যবহার না করে বঞ্চিত মানুষের জন্য কাজ করুণ

মো: ইফাজ খাঁ, মাধবপুর প্রতিনিধি

বাংলাদেশের প্রধান বিচারপতি ওবায়দুল হাসান বলেছেন, আইনজীবীদের শুধু উপার্জনের জন্য নয়, পড়তে হবে আইনের বিধানগুলো মনেপ্রাণে ধারণ ও চর্চা করার জন্য। তবেই আইনজীবী হিসেবে পেশাগত দক্ষতা বৃদ্ধি পাবে।  আইন পেশায় সফলতার জন্য সংক্ষিপ্ত কোন পথ নাই। একজন সফল আইনজীবী হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে নিরন্তর প্রচেষ্টা চালিয়ে যেতে হবে। মনে রাখতে হবে সঠিক সাক্ষ্য প্রমাণ এবং আইনী বিশ্লেষনের মাধ্যমে সঠিক সিদ্ধান্তে উপনীত হতে আদালতকে সহায়তা করাই একজন প্রকৃত আইনজীবীর কর্তব্য।
তিনি আরও বলেন, আইনপেশা হল সালিনতা ও শিষ্টাচার প্রকাশের পেশা। সমাজ, সংস্কৃতি ও রাজনীতি সকল প্রগতিশীল কাজেই আইনজীবীরা ভূমিকা রাখায় আইনজীবীদের সমাজে আলাদা একটা অবস্থান রয়েছে। মহাত্মা গান্ধি, জহরলাল নেহেরু, শেরে বাংলা ও হোসেন শহীদ সওরাওয়ার্দী এই পেশাকে শ্রদ্ধা ও সম্মানেরর স্থানে নিয়ে গেছেন। এখানে অর্থ ভিত্ত মূল কথা নয়, সমাজে আইনের শাসন নিশ্চিত করাই হল আইনজীবীদের কাজ। বিচারপ্রার্থী জনগন ন্যায় বিচার পাওয়ার জন্য আইনজীবীদের কাছে আসেন। তারা আইনের মারপ্যাচ বুঝেন না বলে পরম নির্ভরতায় আইনজীবীকে দায়িত্ব দেন। সততা ও নিষ্টার সাথে দায়িত্ব পালনের মাধ্যমে জনগনকে আইনী সহায়তা করা প্রতিটি আইনজীবীর কাজ। আইনজীবী হিসাবে সফল হতে হলে উচ্চ আদালতের সর্বশেষ সিদ্ধান্তগুলো জানতে হবে। কোন সময় বিচারকে সমালোচনা করা যাবে না। এতে সমাজে ভূল ম্যাসেজ চলে যায়।
প্রধান অতিথি আরও বলেন, দেশের বিচার বিভাগ ৪০ লাখ মামলার ভারে নুয়ে পড়েছে। সংকট রয়েছে বিচারক ও অবকাঠামোর। বার বেঞ্চের মধ্যে সুসম্পর্ক নিশ্চিত করে এই বিচার জট কমাতে কাজ করতে হবে। আইন পেশাকে জীবিকা হিসাবে ব্যবহার না করে অধিকার বঞ্চিত মানুষের কল্যানে নিশ্চিত করার লক্ষ্যে কাজ করবেন। বার বেঞ্চ উভয়ই একজন আরেকজনের পরিপুরক, কেউ কারো প্রতিপক্ষ নন।
তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির হলরুমে সমিতির শতবর্ষ উদযাপন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য এসব কথা বলেন। জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি মো. আবুল মনসুর চৌধুরীর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মোছাব্বির বকুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জ-৩ আসনের এমপি এডভোকেট মো. আবু জাহির, সিনিয়র জেলা ও দায়রা জজ মো. হাসানুল ইসলাম, জেলা প্রশাসক মোছা. জিলুফা সুলতানা, পুলিশ সুপার মো. আক্তার হোসেন, চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মো. হারুন-অর রশিদ, আপীল বিভাগের রেজিস্ট্রার সাইফুর রহমান, হাইকোর্ট বিভাগের রেজিস্ট্রার মুন্সী মশিয়ার রহমান প্রমুখ। অনুষ্ঠানে আইন পেশায় ৫০ বছর পুর্তিতে হবিগঞ্জ জেলা আইনজীবী সমিতির সিনিয়র ৩ সদস্য অ্যাডভোকেট মো. নুরুল আমিন, অ্যাডভোকেট স্বদেশ রঞ্জন বিশ^াস ও অ্যাডভোকেট রঞ্জিত কুমার দত্তকে সংবর্ধনা দেয়া হয়।
পরে প্রধান বিচারপতি জেলা আদালত চত্ত¡রে ন্যায়কুঞ্জ উদ্বোধন করেন। হবিগঞ্জ আদালত প্রাঙ্গনের সামনে নান্দনিক এই স্থাপনা বাস্তবায়ন করে গণপূর্ত অধিদপ্তর। ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে এটি বাস্তবায়ন করা হয়েছে। বিকেলে প্রধান বিচারপতি হবিগঞ্জ ‘ল’ কলেজে মুট কোর্ট উদ্বোধন করেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট সালেহ উদ্দিন আহমেদের সভাপতিত্বে ও সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মো. সাখাওয়াত হোসেন খানের পরিচালনায় এতে বক্তৃতা করেন সুপ্রীম কোর্টের আইনজীবী অ্যাডভোকেট ফয়েজ আহমেদ প্রমূখ। প্রধান বিচারপতি হবিগঞ্জ বিচার বিভাগের বিচারকদের সাথেও মতবিনিময় করেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *


ফেসবুকে আমরা

Categories